1. news@www.joybangla24tv.com : news :
শুক্রবার, ১৯ অগাস্ট ২০২২, ০১:২২ পূর্বাহ্ন
ব্রেকিং নিউজ :
এক যুগেরও বেশি সময় পর বৈঠকে বসছে ভারত-বাংলাদেশ যৌথ নদী কমিশন (জেআরসি) ‘আমাদের রক্তের ভেতরে আওয়ামী লীগ’- সোহেল তাজ রাজধানীর উত্তরায় গার্ডার দুর্ঘটনা : ক্রেনচালকসহ ৯ জন গ্রেপ্তার রাজপথ থেকেই আওয়ামী লীগের জন্ম: ওবায়দুল কাদের বারবার নিরাপত্তার বিষয়টি লঙ্ঘন করেছে চীনা ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান ১৫ আগস্ট আপনজন হারিয়েছি তখন তাদের মানবাধিকার কোথায় ছিল? এএসপি মহরমকে শুধু বদলি নয়, স্থায়ীভাবে চাকরি থেকে বরখাস্ত করতে হবে: শম্ভু বিআরটি প্রকল্প বন্ধ করে প্রকল্প পরিচালকসহ সংশ্লিষ্টদের গ্রেপ্তার দাবি ছাত্রলীগের ছেলেদের মারার উদ্দেশ্যই ছিল পুলিশের: এমপি শম্ভু রাজধানীর উত্তরায় গার্ডার চাপায় ৫ স্বজন হারিয়ে বেঁচে রইলেন নবদম্পতি
শিরোনাম:

সয়াবিন তেলের দাম কমল

  • প্রকাশিত: রবিবার, ২৬ জুন, ২০২২
  • ৩৮ বার পড়া হয়েছে

দেশের বাজারে সয়াবিন তেলের দাম লিটারে ৬ টাকা কমেছে। এ ঘোষণা দিয়েছে ভোজ্যতেল ব্যবসায়ীদের সংগঠন বাংলাদেশ ভেজিটেবল অয়েল রিফাইনার্স অ্যান্ড বনস্পতি ম্যানুফ্যাকচারার্স অ্যাসোসিয়েশন।

রোববার (২৬ জুন) বিকেলে সংগঠনের নির্বাহী কর্মকর্তা নূরুল ইসলাম মোল্লা স্বাক্ষরিত এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য নিশ্চিত করা হয়।

নতুন দাম অনুযায়ী প্রতি লিটার সয়াবিন তেল পাওয়া যাবে ১৯৯ টাকায়। বর্তমান মূল্য ২০৫ টাকা। সোমবার (২৭ জুন) থেকে নতুন দাম কার্যকর হবে।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, এক লিটার খোলা সয়াবিন তেলের দাম ১৮০ টাকা এবং ৫ লিটার সয়াবিন তেলের বোতলের দাম ৯৮০ টাকা নির্ধারণ করা হয়েছে।

এর আগে, আজ সকালে তেলের দাম দুই-একদিনের মধ্যে কমতে পারে বলে জানিয়েছিলেন বাণিজ্য সচিব তপন কান্তি ঘোষ। এর কয়েক ঘণ্টা পরেই সয়াবিন তেলের দাম কমার ঘোঘণা এল।

ওই বক্তব্যে আন্তর্জাতিক বাজারে সয়াবিনের দাম কমেছে জানিয়ে তপন কান্তি ঘোষ বলেছিলেন, এ তেলটা আমাদের আসে প্যারাগুয়ে, ব্রাজিল ও আর্জেন্টিনা থেকে। সেখান থেকে তেল আসতে কমপক্ষে ৪৫ থেকে ৬০ দিন লেগে যায়। এখানে যে সময়ের গ্যাপ রয়েছে তাই চাইলেও দেশের বাজারে তাৎক্ষণিক দাম কমানো যায় না। এই সময়ের গ্যাপটা চিন্তা করতে হয়। তবে সুখবর হলো ইন্দোনেশিয়া থেকে এখন কিছু তেল আসে, সেখান থেকেও আসতে ১৫ থেকে ২০ দিন সময় লাগে। আন্তর্জাতিক বাজারে দাম কমেছে আবার ডলারের দামও বেড়েছে সেটাও মাথায় রাখতে হবে। এই দুটি বিষয় সমন্বয় করে দাম নির্ধারণ করা হবে।

তেলের দাম বাড়ানোর সময় ব্যবসায়ীদের যে তোড়জোড় দেখা যায় কমানোর সময় সে তোড়জোড় দেখা যায় কী না- এমন প্রশ্নের জবাবে সচিব বলেন, আমরা আপনাদের ডাকতে পারি সব সময়। এখন মন্ত্রী অসুস্থ। তেলের দাম যৌক্তিক পর্যায়ে যেন কমে সেটা আমরা দেখবো।

সচিব আরও বলেন, ক্রেতা ও বিক্রেতার মধ্যে একটা দাম্ভিক সম্পর্ক রয়েছে। বিক্রেতা সব সময় বেশি দাম দিয়ে বিক্রি করতে চায়, আর ক্রেতা কম দামে কিনতে চায়। বিষয়টার জন্য এই ধরনের আচরণ দেখা যায়। সেজন্যই সরকার হস্তক্ষেপ করে। যেকোন পণ্যের যোগান ও সরবরাহ দিয়ে পণ্যের মূল্য নির্ধারণ হয়, এটাই স্বাভাবিক নিয়ম।

সর্বশেষ গত ৯ জুন সয়াবিন তেলের দাম বাড়ানো হয়েছিল। ওই সময় প্রতি লিটার বোতলজাত সয়াবিন তেলের দাম ৭ টাকা বাড়িয়েছিল সরকার।

আর গত ৫ মে তেলের খোলা সয়াবিন তেল প্রতি লিটার ১৪০ টাকা থেকে বাড়িয়ে ১৮০ টাকা হয়েছিল। ওই সময় বোতলজাত সয়াবিন তেল প্রতি লিটার ১৬০ টাকা থেকে বাড়িয়ে ১৯৮ এবং ৫ লিটারের বোতলের দাম ৭৬০ টাকা থেকে বাড়িয়ে নির্ধারণ করা হয়েছিল ৯৮৫ টাকায়।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরো সংবাদ পড়ুন

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত                                                                                             

ওয়েবসাইট নকশা প্রযুক্তি সহায়তায়: ইয়োলো হোস্ট